আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় শাশুড়িকে খুন

চট্টগ্রামে রাউজানে শাশুড়ি হত্যা মামলায় পুত্রবধূ কুসুম আকতারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার ভোর রাতে পটিয়ার পৌরসদর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সূত্র জানায়, ২০১৫ সালের ২১শে সেপ্টেম্বর রাউজান উপজেলার পাহাড়তলী ইউনিয়নে শহিদুল্লাহ কাজী বাড়িতে পুত্রবধূ কুসুম আকতার ও ভাতিজা শেখ কামালকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন শাশুড়ি নুর আয়েশা বেগম। তাৎক্ষণিক ঘটনা চাপা দিতে কুসুম আকতার ও ভাতিজা শেখ কামাল মিলে নুর আয়েশা বেগমকে গলাটিপে হত্যা করে। বিষয়টি প্রথমদিকে চাপা থাকলেও পরবর্তীতে নিহতের প্রবাসী ছেলে মো. মুবিন দেশে এসে নানা কৌশলে ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন করে।

পরে মো. মুবিন বাদী হয়ে তার মামাতো ভাই শেখ কামাল ও স্ত্রী কুসুম আক্তারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিহতের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করা হয়।

আরো পড়ুন: বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯ দেখুন মোবাইলে

এদিকে মামলার পর থেকে কুসুম আকতার ও মামাতো ভাই শেখ কামাল দুজনই পলাতক ছিলো। দীর্ঘদিন পর শুক্রবার ভোরে পটিয়া থেকে স্ত্রী কুসুম আকতারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেফায়েত উল্লাহ জানান, ‘আপন ভাতিজার সঙ্গে পুত্রবধূকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় দুইজন মিলে শাশুড়ি নুর আয়েশা বেগমকে গলাটিপে হত্যা করে। কুসুম আকতারকে গ্রেফতার করে চট্টগ্রাম কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।’

ডেস্ক নিউজ

নেট থেকে সংগৃহিত ও অনুবাদকৃত সংবাদ সমূহ অফিসে সাব-এডিটরগণ সম্পাদনা করে প্রকাশ করে থাকেন। এ জাতীয় সংবাদ গুলো ডেস্ক নিউজ হিসেবে প্রকাশিত হয়।