মেয়র তাপসের এর নামে ভূয়া ফেইসবুক আইডি খুলে প্রতারণা: গ্রেফতার ২

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নুর তাপসের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণার অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের একটি টিম। সোমবার (১১ জানুয়ারি) দিনগত রাতে অভিযান চালিয়ে রংপুর ও গাজীপুর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- মো: জাকারিয়া ও মো: একরামুল হক ওরফে রাজু। এ সময় তাদের হেফাজত হতে ফেইসবুক ডিভাইস, একটি স্মার্ট ফোন ও টাকা লেনদেন করার কাজে ব্যবহৃত একটি বিকাশ একাউন্ট নাম্বারের সীম উদ্ধার করা হয়।

আজ মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১১.৩০ টায় ডিএমপি গোয়েন্দা অফিস কম্পাউন্ডে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) এ কে এম হাফিজ আক্তার, বিপিএম-বার।

গত ১০ জানুয়ারী ২০২১ (রোববার) থেকে ধারাবাহিক অভিযানে রংপুর ও গাজীপুর জেলা হতে তাদের গ্রেফতার করে গোয়েন্দা সাইবার এন্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের ওয়েব বেইজড ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন টিম। উল্লেখ্য, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস এর নামে ভূয়া ফেইসবুক আইডি খুলে প্রতারণার অপরাধে মেয়রের এপিএস মনিরুল ইসলামের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ১ জানুয়ারি শাহবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা রুজু হয়। গোয়েন্দা সাইবার এন্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের ওয়েব বেইজড ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন টিম এ মামলা তদন্ত করে ।

গত পহেলা জানুয়ারি মেয়র তাপসের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণার অভিযোগে শাহবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়। মামলার তদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ। পরে আসামিদের শনাক্ত করে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময়ে জাকারিয়ার ফেসবুক অ্যাপসে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের নামে একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি “Shekh Fazle Noor Taposh” লগইন অবস্থায় পাওয়া যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা জানায়, গ্রেফতারদের মধ্যে মো. জাকারিয়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে নিজেকে মেয়র পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন লোকজনদের চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে টাকা দাবি করে। উক্ত টাকা সংগ্রহ করার জন্য মো. একরামুল হকের নামে রেজিস্ট্রেশনকৃত বিকাশ নাম্বার ব্যবহার করে।

এদিকে আরেক অভিযানে সোমবার রংপুরের রাণীশংকৈল থেকে ফেসবুক হ্যাক করে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময়ে তার কাছ থেকে ফেসবুক হ্যাকিংয়ে ব্যবহৃত একটি কম্পিউটার, টাকা, দুটি স্মার্ট ফোন, বিভিন্ন অপারেটরের সাতটি সিম উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাইফুল জানান, প্রথমে বিভিন্ন লোভনীয় অফার সম্বলিত ফিশিং লিংক তৈরি করে টার্গেট করে বিশেষ করে মহিলাদের পাঠাই। টার্গেট ফেসবুক আইডি (ভিকটিম) সাইফুলের পাঠানো লিংকে ক্লিক করে লিংকে পাঠানোর নির্দেশনা অনুযায়ী তথ্য প্রদান করা মাত্রই ভিকটিমের ফেসবুক আইডিটি সাইফুলের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়।

এরপর ভিকটিমের ফেসবুক আইডির বন্ধুদের ম্যাসেঞ্জারে নক করে তাদের কাছে বিভিন্ন অজুহাতে টাকা ধার চায় এবং টাকা পাঠানোর জন্য নিজের বিকাশ নাম্বার দেয়। এভাবে সে অসংখ্য ফেসবুক আইডি হ্যাক করে ভিকটিমদের কাছ থেকে বিভিন্ন অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। এ ঘটনায় লালবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।