সুবর্ণচরে শিক্ষকের এর শাস্তিতে আহত মাদ্রাসা ছাত্রী হাসপাতালে ভর্তি!

স্টাফ রিপোর্টারঃ নোয়াখালী সুবর্ণচরে ৭ম শ্রেনীর এক মাদ্রাসার শিশু ছাত্রীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঐ ছাত্রী বর্তমানে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। আহত শিক্ষার্থীর বাবা ইব্রাহিম খলিল বলেন, তার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসি(১৪) সুবর্ণচর উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নের সমিতির বাজারে অবস্থিত বায়তুশ সাইফ ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।

রোববার দুপুর ১ টার সময় জান্নাতুল ফেরদৌসি দুষ্টুমির ছলে তার সহপাঠীদের নিয়ে উচ্চস্বরে চিৎকার করে এতে বিব্রতবোধ করেন মাদরাসার সুপার মনিরুল ইসলাম জিহাদী, পরে জানতে চাইলে এক শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌসির কথা বলেন, এতে শিক্ষক জিহাদী উত্তোজিত হয়ে অভিযুক্তকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে।

মারধরের কারণে ঐ ছাত্রী আহত হলে তার স্বজনরা তাকে চরজব্বার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। প্রধান শিক্ষক জিহাদীর সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, মাদরাসার শৃঙ্খলা ভঙ্গের করণে আমি তাকে একটু শাসন করেছি।

তিনি আরো বলেন,হাসপাতালে নেওয়ার মত কোন কিছু হয়নি। তবুও আমি হাসপাতালে যাবো এবং আমার ভুল হয়ে থাকলে সেটা তার আত্নীয়দের সাথে বসে প্রকৃত ঘটনা বিস্তারিত বলে সমাধান করে নিবো। এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা যায়।

ইউনুছ শিকদার

সুবর্ণচর (নোয়াখালী) প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।