almamun

শিবগঞ্জে সুদখোরের কান্ড

দূর্নীতি চিত্র

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:
শিবগঞ্জের সাহাপাড়ার এক সুদখোর কর্তৃক একই এলাকার এক নিরীহ অসহায় ব্যক্তিকে চরম হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে।
হয়রানীর শিকার হওয়া ব্যক্ত্ িহলো উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নাধীন শ্যামপুর সাহাপাড়া গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে ইসরাইল। তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, প্রায় ৯বছর আগে একই গ্রামের মৃত এরফানের ছেলে মরফুলের নিকট হতে হাজারে মাসিক ১শ হারে ৮হাজার ধার নিয়ে কিছুদিন পর সুদাসলসহ মোট ১৩হাজার শোধ করে দেয়। হঠাৎ করে কয়েকদিন আগে শিবগঞ্জ থানায় সুদাসল সহ মোট ২৫ হাজার পাবে বলে অভিযোগ করলে এস আই তদন্তে গেলে জানতে পারি। আমি তৎক্ষনাত তার সাতে যোগাযোগ করলে সে আমাকে পাল্টা হুমকী দিয়ে বলে যে তোকে টাকা দিতে হবে এবং জেলও খাটতে হবে। এমনকি টাকা না দিলে বাড়ির সবকিছু নিয়ে যাবো । শুধু তাই নয় প্রয়োজনে হাইকোটে যাবো। এ ব্যাপারে মরফুল বলেন আমি কোন সুদ খাই না। ৮বছর আগে আমি তাকে ২৯ হাজার টাকা ধার দিয়েছিলেন,কিছুদিন পর সে ১০টাকা শোধ করেছিল। বাকী ১৯ হাজার টাকা না দেয়ায় আমি আইনের আশ্রয় নিয়েছি। অন্যদিকে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য হোসেন আলি বলেন আমি স্থানীয় ভাবে সমাধানের চেষ্টা করে মরফুল রাজী না হওয়ায় সমাধান করা সম্ভব হয়নি। অভিযোগের স্বাক্ষী এলাকার শাহাজাজান ও আকবর বলেন আমাদের জানা মতে ৮বছর আগে ইসরাইল, মরফুলের নিকট হতে সুদের ওপর ৮ হাজার টাকা নিয়েছিল এবং কিচুদিন পর ১৩ হাজার টাকা দিয়ে সমাধান হয়ে যায়। এব্য্পাারে তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই গোলাম মোস্তফা বলেন সুদ নয়,পাওনা ২৫হাজার টাকার অভিযোগ করেছে।আমি তদন্ত করে পেয়েছি সুদের লেনদেন ছিল।তবে মরফুল তার খাতার হিসাব নিকাশ দেখিয়েছেন। ঈদের পরে থানায় বসার কথা হয়েছে।

Leave a Reply